বুধবার, নভেম্বর ২০, ২০১৯

ফেসবুকে ধর্মীয় অবমাননাকর পোস্ট : ভোলায় পুলিশ-মুসলিম তাওহিদী জনতার সংঘর্ষে নিহত ৪

  • ঢাকা প্রতিনিধি :
  • ২০১৯-১০-২১ ০৩:৩৫:২৪
image

ঢাকা : ফেসবুকে মহানবীকে (সা.) নিয়ে অবমাননাকর পোস্ট দেয়ার ঘটনায় ভোলার বোরহানউদ্দিনে পুলিশের সাথে মুসলিম তাওহিদী জনতা সংঘর্ষে ৪ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে কয়েকশ মানুষ। নিহতদের মধ্যে পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের ছাত্র শাহীন এবং স্থানীয় একটি মাদ্রাসার ছাত্র মাহবুব পাটোয়ারীর লাশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রয়েছে। আর ভোলা সদর হাসপাতালে রয়েছে মিজান ও মাহফুজ নামে দুজনের লাশ। আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ভোলা সদর হাসপাতাল ছাড়াও কয়েকজনকে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এহেন পরিস্থিতিতে বোরহানউদ্দিনে জরুরি ভিত্তিতে ৪ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। সংঘর্ষে হতাহতের খবর পাওয়ার পর হেলিকপ্টারে করে বিজিবি সদস্যদের ভোলায় পাঠানো হয়েছে বলে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ সদরদপ্তরের জনসংযোগ কর্মকর্তা শরিফুল ইসলাম জানিয়েছেন।
ফেসবুকে মহানবীকে (সা.) নিয়ে  স্থানীয় এক যুবকের আপত্তিকর একটি পোস্টের প্রতিবাদে এবং দোষী ব্যক্তির বিচারের দাবিতে গতকাল রবিবার সকালে উপজেলা সদরে সমাবেশ আহ্বান করে মুসলিম তাওহিদী জনতা’র ব্যানারে। বেলা পৌণে ১১টার দিকে সমাবেশে  থেকে লোকজন পুলিশের দিকে ঢিল ছুড়তে শুরু করে। “সমাবেশ শুরু হওয়ার কথা ছিল বেলা ১১টায়। কিন্তু আয়োজকরা সাড়ে ১০টার মধ্যে সমাবেশ শেষ করে দিলে অংশ নিতে আসা জনতা ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে। এক পর্যায়ে পুলিশ সাথে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ বেশ কয়েক রাউন্ড টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে। কিন্তু এতেও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়নি। এ অবস্থায় পুলিশ গুলিবর্ষণ করতে বাধ্য হয়।  আর এতেই হতাহতের এই ঘটনা ঘটে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত (দুপুর দেড়টা) ওই এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।
ফেসবুকে ‘নবীকে নিয়ে কটূক্তি’ করার অভিযোগে স্থানীয় ওই যুবকের বিচারের দাবিতে শনিবার সকালেও বোরহানউদ্দিনের কুঞ্জেরহাট বাজারে মানববন্ধন এবং থানার সামনে ‘মুসলিম তাওহিদী জনতা’র ব্যানারে বিক্ষোভ হয়। তার আগেই শুক্রবার রাতে হিন্দু ধর্মাবলম্বী ওই তরুণ জিডি করতে বোরহানউদ্দিন থানায় যান। তিনি দাবি করেন, তার ফেসবুক আইডি হ্যাকারের কবলে পড়েছে।
এদিকে, শুক্রবার বিকালে ওই তরুণের ফেসবুক আইডি থেকে একটি পোস্ট আসার পর তার ‘স্ক্রিনশট’ কয়েকটি আইডি থেকে ফেসবুকে ছড়ানো হয়। এরপর অনেকেই ফেসবুকে এর প্রতিবাদ জানাতে শুরু করে। এই পরিস্থিতিতে বিষয়টি তদন্তের জন্য ওই তরুণকে থানা হেফাজতে রেখে দেওয়া হয়। পরে স্থানীয় আরও দুইজনকে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে। 


এ জাতীয় আরো খবর