শুক্রবার, ডিসেম্বর ৬, ২০১৯

স্বাধীনতার ৪ যুগ পর নিহত হিন্দুদের স্মরণে ১৫ ডিসেম্বর নিউইয়র্কে গণশ্রাদ্ধ ও পিন্ডদান

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ২০১৯-১১-২৮ ১৭:৩৭:৫৯
image

হ্যামট্রাম্যাক : ’৭১র স্বাধীনতা যুদ্ধে নিহত বীরগতি প্রাপ্ত সকল হিন্দুদের স্মরণে নিউইয়র্কে গণশ্রাদ্ধ ও পিন্ডদানের আয়োজন করা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রস্থ বাংলাদেশ হিন্দু কোয়ালিশন এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে।
আগামী ১৫ ডিসেম্বর রোববার দুপুর ২টায় নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটস সিটির ৪০-২৩ ৭২ স্ট্রিটস্থ ওঁম শক্তি মন্দিরে গণশ্রাদ্ধ ও পিন্ডদান কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হবে। এ উপলক্ষে গৃহীত কর্মসূচীর মধ্যে রয়েছে গণশ্রাদ্ধ, পিন্ডদান, কীর্তন, গীতাপাঠ ও প্রার্থনা। সকলের জন্য প্রসাদের ব্যবস্থাও থাকবে।
গণশ্রাদ্ধ ও পিন্ডদানের আয়োজক যুক্তরাষ্ট্রস্থ বাংলাদেশ হিন্দু কোয়ালিশন মনে করে যে, ’৭১র স্বাধীনতা যুদ্ধে পাকিস্তানী হানাদার বাহিনী ও রাজাকার, আল-সামসদের হাতে অগণিত হিন্দু ধর্মাবলম্বী নারী-পুরুষ নির্মমভাবে নিহত হয়েছেন। কিন্তু নিহতদের মধ্যে অনেকেরই সৎকার্য করার মতো কেউ জীবিত ছিল না। আর তাই স্বাধীনতা যুদ্ধে নিহত এসকল বীরগতি প্রাপ্তদের স্মৃতির প্রতি সম্মান প্রদর্শন এবং তাদের আত্মার সদগতি কামনাই হচ্ছে এ আয়োজনের উদ্দেশ্য। আয়োজকরা গণশ্রাদ্ধ ও পিন্ডদানের কর্মসূচীতে সকলের উপস্থিতি কামনা করেছেন। অনুষ্ঠানের আয়োজকরা যোগাযোগের ব্যাপারে বেশ কিছু ফোন নাম্বার দিয়েছেন।  বিশেষ কোন প্রয়োজন কিংবা কোন কিছু জানতে হলে এসব নাম্বারে যোগাযোগ করা যেতে পারে। নাম্বারগুলো হচ্ছে : ৩৪৭-২৫৫-৫৬০৬, ৯১৭-৭৫৪-৭১৫৪, ৩৪৭-৪৫৩-৪৮১৮, ৯২৯-৩৭২-০৪৪১, ৩৪৭-২৮২-৮৯৭১, ৬৪৬-৪৬২-৮১৬৫, ৩৪৭-৫৯৬-০৯৮৫, ৬৪৬-৫৪৬-৬১৯৯, ৯১৭-৯৮২-২৪৬২।
উল্লেখ্য, ’৭১র স্বাধীনতা যুদ্ধে নিহত হয়েছে অগণিত হিন্দু। এখন পর্যন্ত নিহত অনেকেরই ধর্মীয় বিধান মতে ক্রিয়াকর্ম হয়নি। অথচ ধর্মীয় রীতি অনুযায়ী মৃত্যুর পর শ্রাদ্ধানুষ্ঠান, পিন্ডদান বাধ্যতামূলক। স্বাধীনতার ৪ যুগ পর যুক্তরাষ্ট্রস্থ বাংলাদেশ হিন্দু কোয়ালিশন বিষয়টি শুধু অনুধাবনই করেনি, গ্রহণ করেছে এক মহতী উদ্যোগ। এই উদ্যোগের অংশ হিসেবেই  ১৫ ডিসেম্বরের গণশ্রাদ্ধ ও পিন্ডদান কর্মসূচী। 


এ জাতীয় আরো খবর