শনিবার, আগস্ট ১৫, ২০২০

হবিগঞ্জ মেডিক্যাল কলেজে দুর্নীতি নিয়ে বিক্ষোভ ও নাগরিকবন্ধন

  • হবিগঞ্জ প্রতিনিধি :
image

ছবি : বক্তব্য রাখছেন হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এডভোকেট মনসুর উদ্দিন আহমেদ ইকবাল।

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি : হবিগঞ্জ শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজে নজিরবিহীন দুর্নীতির ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন হবিগঞ্জের নাগরিক সমাজ। গতকাল শুক্রবার বিকেলে টাউন হল প্রাঙ্গনে সংক্ষুব্ধ নাগরিক আন্দোলন বিক্ষোভ ও নাগরিকবন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিভিন্ন বক্তা দুর্নীতির ঘটনায় জড়িতদের চিহ্নিত করে অবিলম্বে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন।
নাগরিকবন্ধনে বক্তারা বলেন, শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজে বিশাল দুর্নীতির খবর গণমাধ্যমে প্রকাশিত হলেও এখন পর্যন্ত দায়ীদের বিরুদ্ধে কোনো ধরণের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি। যে কারণে বিস্মিত হয়েছেন সাধারণ জনগণ। এই বিশাল দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত ডা: আবু সুফিয়ানসহ কেউ যেন দেশ ছেড়ে পালিয়ে যেতে না পারে, সে ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। এইকসাথে বক্তারা দ্রুততম সময়ের মধ্যে শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজের দুর্নীতির বিষয়ে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থার মাধ্যমে কঠোর শাস্তির দাবি জানান । সংক্ষুব্ধ নাগরিক আন্দোলনের সমন্বয়কারী তোফাজ্জল সোহেল এর সভাপতিত্বে ও আমিনুল ইসলামের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন বৃন্দাবন সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ অধ্যাপক মোঃ ইকরামুল ওয়াদুদ, হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এডভোকেট মনসুর উদ্দিন আহমেদ ইকবাল, প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি বিশিষ্ট সাংবাদিক শোয়েব চৌধুরী, সাংবাদিক রফিকুল হাসান চৌধুরি তুহিন, ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সভাপতি আলহাজ্ব শামসুল হুদা, সমাজকর্মী এডভোকেট বিজন বিহারী দাস, রজব আলী মাস্টার, সৈয়দ আসাদুজ্জামান সুহান, মনসুর আহমেদ, আবিদুর রহমান রাকিব, নদী খা, আমিনুল ইসলাম, সানজিদ শিহাম প্রমূখ। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজের সরঞ্জাম ও আসবাবপত্র ক্রয়ের জন্য বরাদ্দকৃত প্রায় ১৫ কোটি টাকার সিংহভাগ টাকা কয়েক গুণ বেশি মূল্য দেখিয়ে কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ডাক্তার আবু সুফিয়ানসহ সংঘবদ্ধচক্র আত্মসাৎ করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। যা গত এক সপ্তাহ যাবত স্থানীয়-জাতীয় গণমাধ্যমে খবর এসেছে। যা নিয়ে ফেসবুকেও তোলপাড় চলছে।


এ জাতীয় আরো খবর