শনিবার, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২০

ডেট্রয়েটে কারফিউ ভেঙে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ

  • সুপ্রভাত মিশিগান ডেস্কঃ
image

ছবি : জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুর প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল শুরুর প্রাক্কালে শহরতলির ডেট্রয়েটের জো লুই ফিস্টের মূর্তির সামনে প্রতিবাদী জনতার একাংশ। (Photo: David Guralnick, The Detroit News)

ডেট্রয়েট : কারফিউ অমান্য করে ষষ্ট দিনের মতো বুধবার দিনটিও বিক্ষোভে উত্তাল ছিল ডেট্রয়েট। স্লোগানে স্লোগানে রাজপথ প্রকম্পিত করেন বিক্ষোভকারীরা। 
বিকেল ৬টা ৫০ মিনিটে হাজারো মানুষের এই বিক্ষোভটি শহরতলির ডেট্রয়েট ডাউনটাউনের জো লুই ফিস্টের সামন থেকে বের হয়। সময়ের সাথে সাথে মিছিলে বাড়তে থাকে মানুষের ভিড়। যোগ দেন অনেক পথচারী। অনেকে সাইকেল নিয়েও অংশ নেন মিছিলে। মিছিলটি জেফারসন অ্যাভিনিউ ধরে গ্রোস পয়েন্ট অভিমুখে যাত্রা করে। কিন্তু বেল আইলে পৌঁছনোর আগে, মিছিলটি পুনরায় ডাউনটাউনের লাফায়েট অ্যাভিনিউয়ে ফিরে আসার ঘোষণা দেয় বিক্ষোভকারীরা। তারা জানান, কারফিউ ভেঙে মিছিল করতে পারায় সেখানে বিজয় উৎসব করবেন। অনেকে বিক্ষোভে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে জল খাবার হিসেবে পিৎজা ও কোমল পানীয় সরবরাহ করেন।

ছবি : ডেট্রয়েটের মিশিগান অ্যাভিনিউতে  মিছিলের অন্যতম আয়োজক ত্রিস্তান টেলর সমর্থকের কাছ থেকে আলিঙ্গন লাভ করেন।

(Photo: David Guralnick, The Detroit News)

এদিকে ডেট্রয়েট পুলিশ প্রধান জেমস ক্রেগ সাংবাদিকেদের বলেন,"আমি ভয়েসকে সমর্থন করি। আমি শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদকে সমর্থন করি।" ক্রেগ রাত সাড়ে ৮ টায় সংবাদমাধ্যমের সাথে কথা বলছিলেন। তিনি ঘোষণা করেন যে, কর্মকর্তারা কাউকে গ্রেপ্তার করবেন না। জর্জ ফ্লয়েড হত্যার ঘটনায় ষষ্ঠ দিন রাতের এই বিক্ষোভটি ছিল স্বত:স্ফূর্ত ও শান্তিপূর্ণ। তাই তিনি কারফিউ প্রয়োগ করছেন না বলে জানান। "আমরা একটি বিজয় মিছিল করতে যাচ্ছি," তিনি চেঁচিয়ে উঠলেন। জনতা তাকে সাধুবাদ জানান। পাশাপাশি তাদের মধ্যে উল্লাস ছড়িয়ে পড়ে। রাত সাড়ে ১০টায় মিছিটি ওই স্থানে ফিরে আসে। এখানে  নেচে গেয়ে কোলাকুলির মাধ্যমে বিক্ষোভের সমাপ্তি ঘোষণা করেন আন্দোলনকারীরা। 

জর্জ ফ্লয়েডের হত্যাকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত গোটা আমেরিকা। মিনিয়াপলিস পুলিশের হাতে সপ্তাহখানেক আগেই খুন হন আফ্রিকান আমেরিকান জর্জ ফ্লয়েড। তাঁর হত্যাদৃশ্যের ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই ক্ষোভে ফেটে পড়ে গোটা বিশ্ব। এই নৃশংস ঘটনা একই সঙ্গে সহিংস ও শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভের জন্ম দিয়েছে।

Source & Photo: http://detroitnews.com


এ জাতীয় আরো খবর