রবিবার, সেপ্টেম্বর ২০, ২০২০

করোনায় অনাড়ম্বর মিশিগানের দুর্গোৎসব

  • নিজস্ব প্রতিবেদক :
image

হ্যামট্রাম্যাক, ১২ সেপ্টেম্বর : দরজায় কড়া নাড়ছে পুজো। বাঙালির আবেগ জুড়ে রয়েছে দুর্গাপুজো। বছর ঘুরে এই সময়টির জন্য বাঙালি অপেক্ষা করে থাকে। কিন্তু, এবছর চোখ রাঙাচ্ছে করোনা। এ পরিস্থিতিতে মিশিগান রাজ্যের এবারের দুর্গোৎসবে চির পরিচিত সেই আড়ম্বর আর থাকছে না, মহালয়া থেকে শুরু করে শারদীয় এই উৎসবের সব ক্ষেত্রেই থাকবে স্বাস্থ্যবিধির কড়াকড়ি। 
ইতিমধ্যে মিশিগান স্টেট নির্দেশিত স্বাস্থ্য বিধি মেনে পূজা উদযাপনের সকল প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে এখানকার পূজা কমিটি গুলো। তবে, কোভিড-১৯ রোগ ছোঁয়াচে হওয়ায় সংক্রমণ এড়াতে সামাজিক দূরত্ব রক্ষা, ভিড় এড়ানো এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার উপর সবচেয়ে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। স্বাস্থ্য বিধি এবং সীমিত উপস্থিতির কথা চিন্তা করে সংক্ষিপ্ত করা হয়েছে অনুষ্ঠানসূচি। ষষ্টি পূজা হবে ২১ অক্টোবর রাত ৯ টায়। সপ্তমী থেকে দশমী পর্যন্ত প্রতিদিন পূজো শুরু হবে সকাল ১০টায়, অঞ্জলী দুপুর ১২ টায় অনুষ্ঠিত হবে। প্রতি অঞ্জলি পর্বে ৩৬ জন একসঙ্গে অঞ্জলি প্রদান  করতে পারবেন। দশমীর শান্তি প্রশস্তি বন্ধন রাত ৮ টায়। মন্দিরে প্রবেশকালে সকলকে অবশ্যই মাস্ক ও গ্লাভস ব্যবহার এবং স্বাস্থ্য বিধির অনুসরনিকা বহিতে স্বাক্ষর  করতে হবে। করোনার কারণে রাজ্যের নির্দেশনা অনুযায়ী দুর্গোৎসবের কর্মসূচিতে পরিবর্তন হতে পারে বলে জানানো হয়েছে।
হিন্দু রীতি অনুযায়ী, মহালয়া, বোধন আর সন্ধিপূজা- এই তিন পর্ব মিলে দুর্গোৎসব। সাধারণত আশ্বিন মাসের শুক্ল পক্ষের ষষ্ঠ থেকে দশম দিন হয় দুর্গাপূজার মূল আনুষ্ঠানিকতা। আশ্বিন মাসের এই শুক্ল পক্ষকে বলা হয় দেবীপক্ষ। দেবীপক্ষের শুরু হয় যে অমাবস্যায়, সেদিন হয় মহালয়া; সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বিশ্বাস, সেদিন ‘কন্যারূপে’ ধরায় আসেন দেবী দুর্গা।
এবার মহালয়া হবে ১৬ সেপ্টেম্বর। কিন্তু পঞ্জিকার হিসাবে এবার আশ্বিন মাস ‘মল মাস’, মানে অশুভ মাস। সে কারণে এবার আশ্বিনে দেবীর পূজা হবে না। পূজা হবে কার্তিক মাসে। সেই হিসাবে এবার দেবী দুর্গা ‘মর্ত্যে আসবেন’ মহালয়ার ৩৫ দিন পরে।
পঞ্জিকা অনুযায়ী, ২১ অক্টোবর মহাষষ্ঠী তিথিতে হবে বোধন, দেবীর ঘুম ভাঙানোর বন্দনা পূজা। পরদিন সপ্তমী পূজার মাধ্যমে শুরু হবে দুর্গোৎসবের মূল আচার অনুষ্ঠান। ২৫ অক্টোবর মহাদশমীতে বিসর্জনে শেষ হবে দুর্গোৎসবের আনুষ্ঠানিকতা।

 


এ জাতীয় আরো খবর