মঙ্গলবার, অক্টোবর ২২, ২০১৯

নদীভাঙনে দিশেহারা চার জেলার মানুষ

  • বিশেষ প্রতিনিধি
  • ২০১৮-০৯-২৩ ১৩:০৩:১১
image

লক্ষ্মীপুর, শরীয়তপুর, চাঁদপুর, মাদারীপুর। এরমধ্যে লক্ষ্মীপুর, চাঁদপুর ও শরীয়তপুর ঝুঁকিপূর্ণ উপকূল। মেঘনা-পদ্মার ভয়ঙ্কর ভাঙনে এ চারটি জেলার মানচিত্র নদীর গর্ভে গিয়ে ঠেকেছে। ভিটে-মাটি, সহায়-সম্বল হারিয়ে পথে বসেছেন ভাঙন কবলিত মানুষ। তিল তিল করে গড়ে তোলা বহু স্বপ্ন ভেঙে চূর্ণ-বিচূর্ণ হয়ে নিঃস্ব-মানবেতর জীবন-যাপন করছেন ক্ষতিগ্রস্ত মানুষ। নদীর ভাঙন প্রতিরোধে বিজ্ঞানসম্মত উদ্যোগের অভাব সংকট আরো বাড়িয়ে তুলেছে।

সম্প্রতি পদ্মার ভাঙন বেশ ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। টেলিভিশনের পর্দা, খবরের পাতা পূর্ণ হচ্ছে নদীভাঙনের সংবাদে। এখন আমরা যেন একটু বিশেষজ্ঞ হয়ে পড়েছি। যতদিন খবরের পাতা চাঙা থাকে ততদিন! কিন্তু খবরের পাতা যখন এসব খবর থেকে মুখ ফিরিয়ে অন্য খবরে ফেরে; তখন কি এসব মানুষ নিয়ে কেউ গবেষণা করে? বিশেষজ্ঞ হয়? না, হয় না। কারণ যখন যেটা নিয়ে গণমাধ্যম আলোচনা সৃষ্টি করে; তখন সেটা নিয়েই পড়ে থাকে বিশেষজ্ঞরা!


এ জাতীয় আরো খবর