শুক্রবার, আগস্ট ২৩, ২০১৯

বর্ণিল আয়োজন ও আনন্দঘন বনভোজন : হলমিছ পার্কে চট্রগ্রামবাসীর মিলন মেলা

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ২০১৯-০৭-০২ ০৪:০৭:৩১
image

ওয়ারেন : বর্ণিল আয়োজনে মিশিগানে বসবাসরত গ্রেটার চট্রগ্রাম এসোসিয়েশন অব মিশিগান (চাটগাঁইয়্যা মেজবানী বনভোজন) এর বার্ষিক বনভোজন গতকাল রোববার (৩০ জুলাই) ওয়ারেন সিটির হলমিছ পার্কে উদযাপন করা হয়েছে। সকাল থেকেই  নিজস্ব গাড়ীতে করে আমন্ত্রিতরা বনভোজনস্থলে আসতে শুরু করেন। এ সময় বনভোজনে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে টি শার্ট বিতরণ করা হয়। দুপুরের পর পার্কের প্যাভিলিয়ন লোকে লোকারণ্য হয়ে ওঠে। শুরুতেই পিৎজা দিয়ে সবাই সেরে নেন মধ্যাহ্ন পূর্ববর্তী স্ন্যাকস। ‘ধন ধান্যে পুষ্পে ভরা, আমাদের এই বসুন্ধরা’ গানটি পরিবেশনের মধ্য দিয়ে বনভোজনের উদ্বোধন করা হয়। উদ্বোধনী সঙ্গীতে এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দও শিল্পীদের সাথে সুর মেলান। বিপুল সংখ্যক চট্রগ্রামবাসী ও আমন্ত্রিত অতিথিদের উপস্থিতিতে আনন্দঘন এ বনভোজন চট্রগ্রামবাসীর মিলন মেলায় পরিণত হয়। 

উদ্বোধনী সঙ্গীতের এরপরপরই  চট্রগ্রামের ঐতিহ্যবাহী মেজবানী রীতিতে আপ্যায়ন করা হয় অতিথিদের। খাবারের মেনু্যতে ছিল  পোলাও, রোস্ট, চিকেন তন্দুরী, গরু ও ছাগলের রেজালা, গরু দিয়ে বুটের ডাল, সালাদ প্রভৃতি। এছাড়া সারাদিন তরমুজ, বিস্কিট, চা এবং ঠান্ডা পানীয়তে নিজেদের সতেজ রাখেন অতিথিরা।


মধ্যাহ্নভোজের পর শুরু হয় খেলাধূলা । বিভিন্ন ইভেন্টে অংশ নিয়ে পিকনিককে প্রাণবন্ত করে রাখেন সবাই। দিনব্যাপী বিভিন্ন ইভেন্টে সাজানো মনোমুগ্ধকর অনুষ্ঠান উপস্থিত সকলে উৎসাহ উদ্দীপনায় উপভোগ করেন। সকল প্রতিযোগিকে পুরস্কার প্রদান করা হয়। দেয়া হয় সান্তনা পুরস্কারও। সবশেষে ছিল আকর্ষণীয় র‌্যাফেল ড্র। পুরষ্কারের মধ্যে ছিল কার, টেলিভিশন, ডিফ ফ্রিজ, রেফ্রিজারেটর, লেপটপ, কম্পিউটার প্রিন্টার, এয়ার কন্ডিশনারসহ আরো অনেক কিছু। কার বিজয়ী হয়েছেন হ্যামট্রাম্যাক সিটির সালাম সেলিম। 

বনভোজনের শেষ পর্যায়ে গ্রেটার চট্রগ্রাম এসোসিয়েশন অব মিশিগান এর আহ্বায়ক মাহফুজ চৌধুরী ও সদস্য সচিব গিয়াস তালুকদার অংশগ্রহণকারী সকলকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানিয়ে এবং আগামীতে সবার সাথে পুনরায় মিলিত হওয়ার আশা ব্যক্ত করে বনভোজনের সমাপ্তি ঘোষণা করেন। 

 


এ জাতীয় আরো খবর