মঙ্গলবার, অক্টোবর ৪, ২০২২

এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা নবীগঞ্জের ৬টি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থী সাড়ে ৪ হাজার

  • আনোয়ার হোসেন মিঠু :
image

ছবি : সংগৃহীত

নবীগঞ্জ, (হবিগঞ্জ) ১৪ সেপ্টেম্বর কাল :  বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) থেকে শুরু হচ্ছে মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমানের পরীক্ষা। যানজটের কথা বিবেচনা করে সকাল ১০টার পরিবর্তে এবার বেলা ১১টায় পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে এবং পরীক্ষার সময় ৩ ঘণ্টা থেকে কমিয়ে ২ ঘণ্টা নির্ধারণ করা হয়েছে। এর মধ্যে প্রশ্নপত্রের এমসিকিউ অংশের জন্য ২০ মিনিট এবং সৃজনশীল অংশের জন্য ১ ঘণ্টা ৪০ মিনিট নির্ধারিত থাকবে। এদিকে আইনশৃংখলা রক্ষা ও যেকোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে প্রস্তত রয়েছে আইনশৃংখলা বাহিনী। পাশাপাশি মাঠে থাকবে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। প্রতিটি কেন্দ্রে আইনশৃংখলা বাহিনীর লোক থাকবে বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, এ বছর নবীগঞ্জ উপজেলার মোট ৬টি কেন্দ্রে পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করবে ৪ হাজার ৬ শত ৪৮ জন পরীক্ষার্থী। নবীগঞ্জ যোগল কিশোর সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ে ১ হাজার ২ শত ৫০ জন, আউশকান্দি রশিদিয়া পাবলিক উচ্চ বিদ্যালয়ে ৭ শত জন, দিনারপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে ৭ শত ২০ জন এবং ইনাতগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ে ৯ শত ৯১ জনসহ মোট ৪টি কেন্দ্রে মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) পরীক্ষায় অংশ নেবে ৩ হাজার ৬ শত ৬১ জন পরীক্ষার্থী। কারিগরি ভোকেশনাল (এসএসসি) পরীক্ষার্থী রয়েছে আরও ৭৪ জন শিক্ষার্থী। এছাড়াও নহরপুর দাখিল মাদ্রাসায় ৩ শত ১ জন এবং রুস্তমপুর সুন্নিয়া নয় মৌজা দাখিল মাদ্রাসায় ৬ শত ১২ জন পরীক্ষার্থী দাখিল পরীক্ষায় অংশ নেবে।
উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ ছাদেক হোসেন জানান, পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে এরইমধ্যে সব ধরনের প্রস্ততি সম্পন্ন করা হয়েছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে সবধরণের সহযোহিতাও দেয়া হয়েছে। যে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে আইনশৃংখলা বাহিনীর পাশাপাশি নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটও মাঠে থাকবে। যানজটের কথা বিবেচনা করে এ বছর সকাল ১০টার পরিবর্তে বেলা ১১টায় পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস ঠেকাতে ২১ দিন দেশের সব কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে সরকার। ১২ সেপ্টেম্বর থেকে ২ অক্টোবর পর্যন্ত (মোট ২১ দিন) দেশের সব কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এবার বিকেলে কোনো পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে না। নির্ধারিত সময়ের ৩০ মিনিট আগে শিার্থীদের পরীক্ষা কেন্দ্রে যেতে বলা হয়েছে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মহিউদ্দিন আহমেদ  জানান, পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে শিক্ষা অফিসের মাধ্যমে সব ধরণের প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। আইনশৃংখলা রক্ষা ও যেকোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে মাঠে থাকবে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।


এ জাতীয় আরো খবর