সোমবার, নভেম্বর ২৮, ২০২২

বিএনপি-জামাত টানা পাঁচ বছর দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন ছিল : নাদেল

  • তোফায়েল রেজা সোহেল :
image

হ্যামট্রাম্যাক, ০৩ অক্টোবর : বিএনপি-জামায়াত জোট যখন সরকারে ছিলো তখন দেশে উন্নয়ন অগ্রগতির তৎপরতা দেখিনি। বরং বাংলাদেশকে দুর্নীতিতে পরপর ৫বার চ্যাম্পিয়ন করেছে। তারা দেশকে অকার্যকর, ধর্মান্ধ ও সন্ত্রাসী রাষ্ট্রে পরিণত করেছিল। মিশিগান স্টেট ও মহানগর আওয়ামী লীগের আলোচনা সভায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। গতকাল রোববার রাতে হ্যামট্রাম্যাক সিটির কাবাব হাউজ মিলনায়তনে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।  
নাদেল বলেন, বিএনপি-জামায়াত বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার পর গ্রেনেড হামলা চালিয়েছে। সাবেক অর্থমন্ত্রী কিবরিয়াকে গ্রেনেড আক্রমণ করে হত্যা করেছে। সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত ও বদর উদ্দিন কামরানের অনুষ্ঠানে গ্রেডেন হামলা করেছে। মহিলা এমপি জেবুন্নেছার বাসায় গ্রেনেড হামলা করেছে। সিলেটের পবিত্র মাজারে যুক্তরাজ্যের হাই কমিশনার আনোয়ার হোসেনের ওপর গ্রেনেড হামলা করেছে। সারাদেশে একযোগে আদালত প্রাঙ্গণসহ হাসপাতাল ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বোমা মেরেছে।  এই জোট সরকার ধর্মান্ধ ও জঙ্গীবাদের পৃষ্টপোষক হিসেবে জনগণের কাছে চিহিৃত হয়েছিল। হাওয়া ভবনের দুর্নীতি আর গ্রেনেড হামলায় রাষ্ট্র ও জাতির ভাবমূর্তি নষ্ট হওয়ার পাশাপাশি স্থবির হয়ে পড়েছিল দেশের অর্থনীতির কর্মকান্ড। 

মিশিগান মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি আব্দুর শাকুর খান মাখনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে রাখেন সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান মঞ্জুর শাহী চৌধুরী এলিম, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ সদস্য খালেদ আহমদ। এসময় মিশিগান স্টেট আওয়ামী লীগ সভাপতি ফারুক আহমদ চান, মিশিগান মহানগর আওয়ামী লীগ সেক্রেটারি মোহাম্মদ মুতালিব, সাবেক সভাপতি ওবায়দুল হক চৌধুরী নাছির, মিশিগান মহানগর যুগ্ম সম্পাদক মিজান মিয়া জসিম, যুবলীগ নেতা ফরহাদ আহমদ গুলজার, ছাত্রলীগ নেতা রিভু চৌধুরী ও এজে পাশা বক্তব্য রাখেন। সভা সঞ্চালনা করেন মিশিগান স্টেট আওয়ামী লীগ সেক্রেটারি আবু আহমদ মুসা ও মহানগর আওয়ামী লীগ যুগ্ম সম্পাদক মৃদুল কান্তি সরকার।  কোরআন তেলেওয়াত করেন আকবর হোসেন।        

প্রধান অতিথি শফিউল আলম নাদেল বলেন, শেখ হাসিনার সাহসী নেতৃত্বে এই তের বছরে সকল অর্থনৈতিক-সামাজিক সূচকে বাংলাদেশ সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। প্রবাসীরা রেমিট্যান্স পাঠাচ্ছেন তারা যাতে ইনসেনটিভ পান সেই ব্যবস্থাও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করেছেন। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্র বা যুক্তরাজ্যের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বা বিভিন্ন মিডিয়ায় আওয়ামী লীগ সরকার ১ সপ্তাহ ক্ষমতায় ঠিকবে না,  দেশ চোরাবালিতে তলিয়ে যাচ্ছে এমন প্রাপাগন্ডা ছড়াচ্ছে। এই জায়গায় বিএনপি-জামাত সফল হয়েছে। আমাদের ব্যর্থতা আমরা মিডিয়ায় বা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই অপৎপরতার বিরুদ্ধে ভূমিকাই রাখতে পারছি না। 
তিনি বলেন, একটি উন্নত সমাজে, উন্নত দেশের যতগুলো সুযোগ সুবিধা রয়েছে আমাদের শত সীমাবদ্ধতার মধ্যে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা দেশের সেই ব্যবস্থা করেছেন। বিধবা ভাতা, বয়স্ক ভাতা,গর্ভবর্তী ভাতা চালু করেছেন। বীর মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতার পরিমাণ বৃদ্ধি করেছেন। নারী শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে শিক্ষার ব্যবস্থা করেছেন। বছরের শুরুতে ছাত্রছাত্রীর হাতে বই তুলে দিচ্ছেন। উন্নয়ন শুধু সড়ক যোগাযোগ বা অবকাঠামোই নয়। প্রত্যেকটা ক্ষেত্রেই আজকে বাংলাদেশ অদম্য গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে।


এ জাতীয় আরো খবর