সোমবার, নভেম্বর ২৮, ২০২২

আটলান্টিক কাউন্টিতে প্রাণের আমেজে দামোদর মাস উদযাপন

  • আটলান্টিক সিটি থেকে সুব্রত চৌধুরী :
image

আটলান্টিক, (নিউ জার্সি ) ০৫ নভেম্বর : গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় নিউ জার্সি রাজ্যের মেইস ল্যান্ডিং শহরে প্রবাসী কৃষ্ণ ভক্তদের উদ্যোগে “দামোদর মাস”  উপলক্ষে ধর্মসভার আয়োজন করা হয়।দামোদর মাস সনাতন ধর্মালম্বীদের জন্য একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ মাস। এই মাস ভগবান বিষ্ণুর মাস হিসাবে খ্যাত। এই মাস ত্যাগের মাস হিসেবেও পরিচিত। এই মাসে ভগবান বিষ্ণুর সেবা একগুণ করলে সহস্রগুণ ফল লাভ করা যায় ।
লক্ষ্মী পূর্নিমা থেকে দামোদর ব্রতের মাস শুরু হয়। প্রত্যেকটা মাসের মধ্যে এই কার্তিক দামোদর মাসটা ভগবানের অতি প্রিয় মাস। অন্য সব মাসে যে যাই করুক সমস্যা নাই, কিন্তু এই মাসে যদি কেউ এই ব্রত পালন না করে তাহলে তার মুক্তির আর  কোন পথ নাই। সে অনন্তকাল নরকযন্ত্রণা ভোগ করবে ।
কার্তিক মাস সনাতনী ধর্মাবলম্বীদের ত্যাগের মাস বা দামোদর মাস। কার্ত্তিক মাস শ্রীহরির সেবার মাস, কার্তিক মাস বা দামোদর মাস ভক্তগণের কাছে অতীব মাহাত্ম্যপূর্ণ একটি মাস। কেননা এই মাসে হরিভক্তির অনুকূল যে কোন কার্যই সহস্রগুণ অধিক ফল দান করে। ভক্তি ভরে স্বল্প পরিমাণ ভগবদ্ সেবা সম্পাদন করলেও ভগবান শ্রীহরি অতিশয় প্রীত হন। বিশেষ করে কার্তিক মাসের অন্যতম একটি ভগবৎ সেবা হচ্ছে ভগবানের মন্দিরে বা গৃহমন্দিরে ভগবানের উদ্দেশ্যে দীপদান। এই সম্বন্ধে বিভিন্ন শাস্ত্রে বলা হয়েছে যে, এই মাসে শ্রীহরি মন্দিরে দীপ দান করলে তাকে আর এই জন্ম মৃত্যুময় জগতে ফিরে আসতে হয় না। “শ্রীহরিভক্তিবিলাস” গ্রন্থের ১৬শ বিলাস অধ্যায়ে উল্লেখ করা হয়েছে যে, কার্তিক মাসে দেবালয়ে ভক্তিভাবে দীপদান, অখন্ড দীপাবলীর আয়োজন, বাড়িতে বাড়িতে দীপমালা সজ্জা ও আকাশ প্রদীপ দান করলে ভগবান শ্রীহরি প্রীতি লাভ করেন। 
কার্তিক বা দামোদর মাসের গুরুত্ব আরোপ করতে গিয়ে শ্রীল প্রভুপাদ বলেন, “এই পবিত্র মাসে যারা ভগবান শ্রীদামোদরের উদ্দেশ্যে ভক্তিসহকারে ভগবানের আনন্দ বিধানের জন্য প্রদীপ নিবেদন করে, তাদের অজ্ঞান অন্ধকার দূরীভূত হয়ে হৃদয়ে জ্ঞানপ্রদীপ প্রজ্জ্বলিত হয় এবং সমস্ত কলুষতা থেকে মুক্ত হয়। অবশেষে মানব জীবনের চরম উদ্দেশ্য কৃষ্ণভক্তি লাভ করে গোলোকে গতি লাভ হয়।”

আটলান্টিক কাউন্টিতে  “দামোদর মাস” পালন উপলক্ষে প্রায় মাসব্যাপী  বিভিন্ন আয়োজনের মধ্যে ছিল ভক্তিভাবে দীপদান, অখন্ড দীপাবলীর আয়োজন, বাড়িতে দীপমালা সজ্জা ও আকাশ প্রদীপ দান, পবিত্র ধর্মগ্রন্থ গীতা থেকে পাঠ, জপমালা, সমবেত প্রার্থনা,ভজন, কীর্তন, প্রসাদ বিতরন ইত্যাদি।
গতকাল মেইসল্যানডিংস্থ প্রাভিন আম্ব্রে এর বাসভবনে অনুষ্ঠিত ধর্মসভায়  আটলান্টিক সিটি স্কুল বোর্ড সদস্য সুব্রত চৌধুরী, পুলিশ কর্মকর্তা সুমন মজুমদার , উত্তম দাশ, প্রদীপ দে, সজল দাশ, তৃপ্তি দাশ, গঙ্গা সাহা, লাকী চৌধুরী, সজল চক্রবর্তী,শুক্লা পাল, সুমি মজুমদার, দীপক শাহ, শান্তনু সরকার, সমীর প্যাটেল  সহ বিপুল সংখ্যক হিন্দু ধর্মাবলম্বী অংশগ্রহন করেন। দামোদর মাস পালন উপলক্ষে  কৃষ্ণভক্তদের  উদ্যোগে আয়োজিত অনুষ্ঠানে পশ্চিম ভার্জিনিয়াস্থ নিউ বৃন্দাবনের ব্রহ্মচারি শুভানন্দ দাস উপস্থিত থেকে কৃষ্ণভক্তদের কৃতার্থ করেন।ধ র্মসভায় তিনি বলেন, সমগ্র সনাতন শাস্ত্রের মূল নির্যাস গীতায় সন্নিবেশিত রয়েছে। গীতার জ্ঞান মানুষের মানবতা জাগ্রত করে। গীতার বাণীর প্রচার যত বেশি হবে, মানবজাতির ততই কল্যাণ সাধিত হবে। আটলান্টিক সিটি ও তদসংলগ্ন শহরগুলোতে প্রবাসী কৃষ্ণভক্তদের উদ্যোগে “দামোদর মাস” উদযাপনে  কমিউনিটিতে বেশ সাড়া পড়েছে।


এ জাতীয় আরো খবর