সোমবার, নভেম্বর ২৮, ২০২২

করোনা পরিস্থিতিতে মৃধা ফাউন্ডেশনের মানবিক উপহার

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
image

হ্যামট্রাম্যাক : করোনা পরিস্থিতিতে মিশিগানের নতুন অভিবাসী এবং অভাবগ্রস্থ পরিবারের সাহায্যে এগিয়ে এসেছে মৃধা ফাউন্ডেশন। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে মৃধা ফাউন্ডেশন বিশ্বব্যাপী বিভিন্ন সংস্থার সাহায্যের আবেদনে সাড়া দেয়ার পাশাপাশি বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলে খাদ্য বা আর্থিক সহায়তা প্রদান অব্যাহত রেখেছে।
করোনা পরিস্থিতির কারণে মিশিগান রাজ্যের বিভিন্ন সিটিতে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশীরা স্টে হোম আদেশের কারণে ঘরে অবরুদ্ধ হয়ে রয়েছেন। নবাগতসহ অনেক অভিবাসী সরকারি সাহায্য-সহযোগিতা থেকেও বঞ্চিত। এদের অনেকেরই নেই কোন যান। এ কারণে এসব পরিবারের লোকজনের মধ্যে খাদ্য ও সুরক্ষা সামগ্রীর অভাব প্রকট হয়ে দেখা দিয়েছে । গত দু’দিন ধরে মৃধা ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে হ্যামট্রাম্যাক ও ডেট্রয়েট সিটির এসব পরিবারের মধ্যে খাদ্য ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী উপহার হিসেবে বিতরণ করা হচ্ছে। বিতরণকৃত উপহার সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে রাইসল্যান্ড চাল ৫০ পাউন্ড, ক্যানোলা তেল ১ গ্যালন, মসুর ডাল  ৪ পাউন্ড, মুগ ডাল ৪ পাউন্ড, লবণ ২৬ আউন্স, চিনি ৪ পাউন্ড, চিরা ২ পাউন্ড, সাগু ১৬ আউন্স, আলু ১ ব্যাগ, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ১৬ আউন্স, এন-৯৫ মাস্ক ২ পিস প্রভৃতি। ঘরে ঘরে এসব খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিয়ে এক মানবিক দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন কমিউনিটির অত্যন্ত প্রিয় মুখ কমলেন্দু পাল। খাদ্য বিতরণ কর্মসূচীতে সহায়তা করার জন্য ডেট্রয়েট দুর্গা মন্দিরের স্বেচ্ছাসেবীসহ কমলেন্দু পালকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন মৃধা ফাউন্ডেশনের কর্ণধার বিশিষ্ট নিউরলজিস্ট এবং দার্শনিক ডা: দেবাশীষ মৃধা এবং তাঁর সহধর্মিনী চিনু মৃধা। 
এছাড়াও মৃধা ফাউন্ডেশন বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলে খাদ্য বা আর্থিক সহায়তা দিয়ে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে ৫০০ পিপিই, ৫০০ ফেস শিল্ড, ৫০০ এন-৯৫ মাস্ক, গ্লাভস, সার্জিক্যাল মাস্ক এবং মেডিকেল সরঞ্জাম সহায়তা প্রদান করেছে।
উল্লেখ্য, মৃধা  ফাউন্ডেশন নামের এই সংস্থাটি মিশিগান রাজ্যের সাগিনা সিটিতে অবস্থিত। মূলত: বিশ্বব্যাপী শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতির প্রসার এবং মানুষের জীবন মানের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে এই ফাউন্ডেশন। এছাড়া মৃধা ফাউন্ডেশন স্ব-স্ব ক্ষেত্রে অবদানের জন্য বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে এওয়ার্ড প্রদান করে থাকে প্রতি বছর।


এ জাতীয় আরো খবর