বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী ২১, ২০২১

বঙ্গবন্ধুর ৪ খুনির মুক্তিযোদ্ধা খেতাব স্থগিত

  • সুপ্রভাত মিশিগান ডেস্কঃ
image

ঢাকা, ১৫ ডিসেম্বর : বঙ্গবন্ধুর চার খুনির মুক্তিযোদ্ধা খেতাব স্থগিত করেছে হাইকোর্ট। একইসঙ্গে তাদের খেতাব বাতিলে সরকারের নিষ্ক্রিয়তা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি হয়েছে। রুল নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত তাদের খেতাব স্থগিত থাকবে। বঙ্গবন্ধুর যে চার খুনির রাষ্ট্রীয় খেতাব স্থগিতের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে তারা হলেন শরীফুল হক ডালিম, এস এইচ এম বি নূর চৌধুরী, এ এম রাশেদ চৌধুরী ও মোসলেহ উদ্দীন ওরফে মুসলেম উদ্দীন। মঙ্গলবার (১৫ ডিসেম্বর) বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি মোহাম্মদ খায়রুল আলম এ আদেশ দেন। 
এ বিষয়ে গত ২ ডিসেম্বর হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী সুবীর নন্দী দাসের পক্ষে আইনজীবী আবদুল কাউয়ুম খানের করা এক রিটের প্রেক্ষিতে এই আদেশ দেয়া হয়।
রিট আবেদনে বলা হয়, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইট ও গেজেটে দেখা গেছে, বঙ্গবন্ধুর পলাতক ছয় খুনির অন্যতম নূর চৌধুরীর নামের সঙ্গে ‘বীর বিক্রম’, শরিফুল হক ডালিমের নামের সঙ্গে ‘বীর উত্তম’, রাশেদ চৌধুরীর নামের সঙ্গে ‘বীর প্রতীক’ ও মোসলেহ উদ্দিন খানের নামের সঙ্গে ‘বীর প্রতীক’ উপাধি রয়েছে। ওই তালিকা সর্বশেষ হালনাগাদ করা হয়েছে ২০১৫ সালের ১১ অগাস্ট। অথচ ১৯৯৮ সালের ৮ নভেম্বর ওই চারজনসহ মোট ১৫ জনকে মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিত করে ঢাকার দায়রা জজ আদালত। ২০০৯ সালের ১৯ নভেম্বর আপিল বিভাগ সেই মামলার চূড়ান্ত রায় দেয়। আবেদনে আরো বলা হয়, জাতির পিতাকে হত্যাকারী এই চারজনের খেতাব এখনো বাতিল করা হয়নি। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এ রকম পরিস্থিতিতে খেতাব বাতিলের নজির রয়েছে।
জাতির পিতা হত্যা মামলায় দণ্ডিত ও পলাতক এই চার আসামির খেতাব বাতিলে বিবাদীর নিষ্ক্রিয়তা কেন অবৈধ হবে না, এ মর্মে রুলের আর্জিসহ এই খেতাব ফিরিয়ে নেওয়ার নির্দেশনা চাওয়া হয়। আবেদনে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সচিব, মন্ত্রিপরিষদ সচিবকে বিবাদী করা হয়।


এ জাতীয় আরো খবর