রবিবার, ফেব্রুয়ারী ২৮, ২০২১

যুক্তরাষ্ট্রে এই প্রথম করোনায় দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা এক লাখের নিচে নামলো

  • সুপ্রভাত মিশিগান ডেস্কঃ
image

আটলান্টা, ১৪ ফেব্র্রুয়ারি : যুক্তরাষ্ট্রে প্রথমবারের মতো কয়েক মাসের মধ্যে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা এক লাখের নিচে নেমেছে। তবে রবিবার বিশেষজ্ঞরা সতর্ক করেছেন যে, আক্রান্তের সংখ্যা কিছুটা কমলেও তা অনেক বেশি। তাই করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধে পূর্ব সতর্কতাগুলো যথাযথভাবে মেনে চলতে হবে। আন্তর্জাতিক শীর্ষস্থানীয় বার্তা সংস্থা অ্যাসোসিয়েট প্রেস (এপি) এর বরাতে দি ডেট্রয়েট নিউজ এ খবর দিয়েছে।
ডিসেম্বরের বেশিরভাগ ক্ষেত্রে নতুন সংক্রমণের সংখ্যা সাত দিনে গড়ে  ২০০,০০০ এরও ওপরে ছিল এবং জানুয়ারিতে ২,৫০০০০ এর উপরে ছিল। জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটির তথ্য অনুসারে, মহামারীটি আবার তীব্র বেগে গ্রীষ্মে ফিরে আসায় পরিস্থিতি খারাপ হয়। ৪ নভেম্বর থেকে প্রথমবারের মতো শুক্রবারে গড় আক্রান্তের সংখ্যা ১,০০,০০০ এর নিচে নেমে যায়। শনিবারও এই সংখ্যা ১, ০০০০০ এর নিচে ছিল।
“আমরা এখনও দিনে প্রায় ১,০০,০০০ আক্রান্তের ঘরে রয়েছি। আমরা এখনও প্রতিদিন প্রায় ১,৫০০ থেকে ৩,৫০০ জন মৃত্যুর সংখ্যা হিসাব করছি। আক্রান্তের সংখ্যা গ্রীষ্মকালে আমরা প্রায় আড়াইগুণ বেশি দেখেছি। এনবিসি'র" মিট দ্য প্রেসকে এই তথ্য জানিয়েছেন রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্র কেন্দ্রের পরিচালক ডা: রোচেল ওয়ালেন্সকি। তিনি বলেন, আমরা হয়তো দেখছি, সংক্রমণের সংখ্যা কমেছে। কিন্তু সেটা অনেক বেশি থেকে কম হয়েছে।
তিনি আরও বলেছেন, যুক্তরাজ্যে প্রথম ধরা পড়ে এমন একটি নতুন ধরনের করোনা ভাইরাস যা আরও সংক্রমণযোগ্য বলে মনে হচ্ছে। এরই মধ্যে ৩০ টিরও বেশি রাজ্যে রেকর্ড করা হয়েছে, সম্ভবত আরও সংক্রমণ এবং আরও বেশি মৃত্যুর কারণ হতে পারে। এগুলো সবই সত্য এবং আমরা কোনটিকে এড়িয়ে যেতে পারি না। তাই আমাদের মাস্ক পরতে হবে, শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে এবং করোনার টিকা পাওয়া গেলেই তা প্রয়োগ করতে হবে বলে জানান ওয়ালেন্সকি।
জন হপকিন্সের তথ্য অনুসারে যুক্তরাষ্ট্রে ২৭.৫ মিলিয়নেরও বেশি আক্রান্ত এবং ৪৮৪,০০০ এরও বেশি মৃত্যুর রেকর্ড হয়েছে। ওয়ালেনস্কি বলেছিলেন যে বাবা-মা এবং রাজনৈতিক নেতারা ব্যক্তিগত শিক্ষার জন্য শিশুদের স্কুলে ফেরাতে আগ্রহী। কিন্তু আমাদের সাবধানতাও অবলম্বন করতে হবে।

Source & Photo: http://detroitnews.com


এ জাতীয় আরো খবর