রবিবার, জুন ১৩, ২০২১

১০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে বাজে অবস্থায় বিটকয়েনের মান

  • সুপ্রভাত মিশিগান ডেস্কঃ
image

ছবি : পিক্সাবে

নিউইয়র্ক, ৩০ মে : বিটকয়েন বিনিয়োগকারীরা মে মাসে বিক্রি করেছেন। এটা ভালভাবে চলে কিনা এটাই দেখার অপেক্ষায় অনেকে। বিটকয়েনের দাম (এক্সবিটি) শুক্রবার ৮% হ্রাস পেয়েছে এবং মে মাসে প্রায় ৩৬ ভাগ পতন হয়েছে। ২০১১ সালের সেপ্টেম্বরের পর মাসিক ভিত্তিতে সবচেয়ে খারাপ মান এই ভার্চুয়াল মুদ্রার। মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন এ খবর দিয়েছে।
গত এপ্রিলে একটি বিটকয়েনের দাম ৬৪ হাজার ডলারে পৌছায়। কিন্তু এরপর থেকে বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে একের পর এক খারাপ খবর আসতে শুরু করে। টেসলার (টিএসএলএ) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা অ্যালন মাস্ক গ্রাহকদের জানিয়েছিলেন যে ইলেক্ট্রিক গাড়ির দাম পরিশোধের ক্ষেত্রে বিটকয়েন আর প্রযোজ্য নয়। কারণ বিটকয়েকন মাইনিংয়ে পরিবেশগত প্রভাব পড়বে ব্যাপক।
চীনও ক্রিপ্টো নিয়ে তার অভিযান বাড়িয়েছে এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ট্রেজারি বিভাগ আরও বেশি করে বিটকয়েন করের নতুন পরিকল্পনা প্রকাশ করেছে, যখন ফেডারাল রিজার্ভ ডিজিটাল ডলারের সম্ভাবনা সম্পর্কে ইঙ্গিত দিয়েছে।
মে অনেকটা ক্রিপ্টো কারেন্সির জন্য অভিশাপ ছিল। বিটকয়েনের মান পড়ে যাওয়াটা অন্যান্য ক্রিপ্টোকারেন্সিগুলিতেও প্রভাব ফেলেছে। বিনান্স কয়েন, এক্সআরপি এবং পোলক্যাডোট এই মাসে ব্যাপক হারে পড়েছে।  অন্যান্য ক্রিপ্টোস, বিশেষত উল্লেখযোগ্যভাবে ইথেরিয়াম - বিটকয়েনের পরে দ্বিতীয় বৃহত্তম এবং অনেক জনপ্রিয় নন-ফাঙ্গিল টোকেন (এনএফটি) চুক্তির মেরুদন্ড । এই ভার্চুয়াল মুদ্রাটি ভাল অবস্থান ধরে রেখেছে। ইথার পড়েছে মাত্র প্রায় ৬%। মেম টোকেন ডেজেকইন, যা মাস্ক বারবার টুইট করেছেন এবং বলছেন মে মাসে কিছুটা নিচে নেমেছে। সরকার-সমর্থিত মুদ্রায় বাঁধা টেথার এবং ইউএসডি কয়েনের মতো তথাকথিত স্ট্যাবিলকয়েনগুলি তাদের সুনাম ধরে রেখেছিল।
ক্রিপ্টো বিনিয়োগকারী হওয়া অনেকেটাই সহজ। বিটকয়েন খুবই দুষ্টু প্রকৃতির এবং অস্থির। মে মাসে এর মন্দা সত্ত্বেও এই বছর দাম ২৫% এরও বেশি বেড়েছে। এত দীর্ঘমেয়াদী অনুরাগী, বা এইচওডিএলর্স তারা নিজেকে কল করতে পছন্দ করে। তারা এর আগেও বহুবার এই রাস্তায় নেমেছে।
"ক্রিপ্টো বিনিয়োগকারী হওয়া সত্যিই সহজ। ক্রিপ্টো ব্যবসায়ী হওয়াটাও খুবই কঠিন।  ব্লকচেইন ডটকমের সিইও পিটার স্মিথ বলেছেন, একটি ক্রিপ্টো গবেষণা, বিনিয়োগ এবং ঋণ দান স্টার্টআপ যার মূল্য  ৫.২ বিলিয়ন ডলার। "এটি একটি খুব উচ্চ স্থিতিশীল বাজার এবং এটি আপনাকে সহজেই ধ্বংস করে দিতে পারে।"
ডিসেম্বর ২০১৭ সালে বিটকয়েনের দাম ছিল প্রায় ২০,০০০ ডলার। যা সেই সময়ে শীর্ষে ছিল, পুনরায় গড়াবার আগে ২০১৯ সালের প্রথম দিকে ৩,৫০০ ডলারের নিচে নেমে যায়। ২০১১ সালের সেপ্টেম্বরে বিটকয়েনের প্রায় ৪০% দাম বেড়েছিল। আগস্ট থেকে অক্টোবরের মধ্যবর্তী তিন মাসের মাঝামাঝি যেখানে প্রতি মাসে দাম ৩৫% এরও বেশি কমে যায়।

 


 

এ জাতীয় আরো খবর