রবিবার, জুন ১৩, ২০২১

অপহরণের ৫৫ ঘণ্টা পর বড়লেখার কোটিপতি ব্যবসায়ী উদ্ধার

  • মৌলভীবাজার প্রতিনিধি :
image

মৌলভীবাজার, ৮ জুন : জেলার বড়লেখা উপজেলার  কোটিপতি ব্যবসায়ী শশাংক কুমার দত্তকে (৫৮) অপহরণের প্রায় ৫৫ ঘণ্টা পর  অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। সেই সাথে  অপহরণকারী চক্রের তিন সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 
অপহৃত শশাংক কুমার দত্ত বড়লেখা পৌর শহরের বারইগ্রামের বাসিন্দা সতেন্দ্র কুমার দত্তের বড় ছেলে। তিনি শহরের হাজীগঞ্জ বাজারের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী। বড়লেখা পৌরশহরে তার একটি ফিলিং স্টেশন, রড-সিমেন্টসহ একাধিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। গত শুক্রবার (৪ জুন) সন্ধ্যার দিকে তিনি নিখোঁজ হন। এরপর তার মুক্তিপণ হিসেবে ৫০ লাখ টাকা দাবি করেছিল অপহরণকারীরা। মৌলভীবাজারের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়া তার কার্যালয়ে সোমবার দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান।
সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়,  শুক্রবার সন্ধ্যার পর সিলেটের ভাড়া বাসায় যাওয়ার উদ্দেশ্যে বড়লেখা উত্তর চৌমহুনাস্থ পোস্ট অফিসের সামনে থেকে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় চড়েন। বিয়ানীবাজারের মোল্লাপুর এলাকায় পৌঁছলে একটি মাইক্রোবাস শশাংকের সিএনজি গাড়িটি গতিরোধকরে তাকে মাইক্রোবাসটিতে তুলে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়। এরপর অপহরণকারীরা তার ছোটভাইয়ের নিকট মুক্তিপণ হিসেবে ৫০ লাখ টাকা দাবি করে। এ ঘটনায় ভিকটিমের ভাই সুবোধ কুমার দত্ত বড়লেখা থানা পুলিশকে বিষয়টি অবহিত করেন। পরে থানা পুলিশের বিশেষ টিম, ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে শশাংককে উদ্ধারে অভিযানে নামে। রোববার রাত দেড়টার দিকে পুলিশ, র‌্যাব ও গোয়েন্দারা যৌথ অভিযান চালিয়ে উপজেলার দক্ষিণ বাহাদুরপুর চা বাগান থেকে তাকে উদ্ধার করেন। এ সময় ঘটনার সঙ্গে জড়িত ২জনকে গ্রেফতার করা হয়। পরে আরও একজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হচ্ছে দক্ষিণ শাহবাজপুর ইউনিয়নের চন্ডিনগর গ্রামের সবুজ হোসেন, ইব্রাহিম আলীর ছেলে ইসমাইল আহমদ ওরফে হারুন ও বোবারথল গ্রামের আব্দুল খালিকের ছেলে জুলমান আহমেদ। ঘটনার সঙ্গে জড়িত অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।


 

এ জাতীয় আরো খবর