রবিবার, জুন ১৩, ২০২১

মাধবপুরে প্রবাস ফেরত নারীর মৃতদেহ উদ্ধার, পরিবারে দাবী বিষ খাইয়ে হত্যা

  • মাধবপুর, (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি :
image

মাধবপুর, (হবিগঞ্জ) ১০ জুন : মাধবপুরে প্রবাস ফেরত এক নারীর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তিনি  বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন এ দাবি মানছে না মৃতের পরিবার। তাদের দাবি কৌশলে তাকে বিষ খাইয়ে হত্যা করা হয়েছে। 
বিধবা সালমা বেগম (৩৫) পরিবারের অভাব দুর করতে ২ বছর আগে দুবাই গিয়েছিলেন। সেখানে গিয়ে মোবাইল ফোনে পরিচয় হয় সৌদি প্রবাসী আহাদ মিয়ার সঙ্গে। মোবাইল ফোনে পরিচয় হওয়ার পর দুজন ঘর সংসার করার স্বপ্ন দেখে। ২ মাস আগে দুজন স্বদেশে ফিরে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। কিন্তু সালমার সেই ঘর বাধার স্বপ্ন পুরন হয়নি। স্বামী নিয়ে সতীনের সংসারে আসার পর সতীন ও সতীনের পুত্ররা সালমার মুখে বিষ ঢেলে হত্যা করেছে, এ অভিযোগ এনে নিহত সালমার মা জাহানারা বেগম বৃহস্পতিবার দুপুরে মাধবপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। 
বিজয়নগর উপজেলার সোনামুড়া গ্রামের মৃত মোবারক মিয়ার স্ত্রী জাহানারা বেগম বলেন, গত ২ বছর আগে সালমার স্বামী মারা যাবার পর পরিবারের অভাব ঘোচাতে দুবাই গিয়েছিলেন। সেখানে মোবাইল ফোনে মাধবপুর উপজেলা ধর্মঘর ইউনিয়নের রসুলপুর গ্রামের মৃত রফিক মিয়ার ছেলে সৌদি প্রবাসী আহাদ মিয়ার সঙ্গে মোবাইল ফোনে পরিচয় হয়। ২ মাস আগে তারা দুজন দেশে চলে আসে। ১৫ দিন আগে উভয়ের সম্মতিতে ইসলামী শরিয়ত মোতাবেক বিবাহে আবদ্ধ হন। বিবাহের পর গত ৮ জুন মঙ্গলবার সালমা রসুলপুর গ্রামের স্বামী আহাদ মিয়া বাড়িতে গেলে ভোরবেলা সতীন ও তার ছেলেরা সালমা বেগমকে মুখে বিষ ঢেলে দেয়। অজ্ঞান অবস্থায় তাকে ব্রাহ্মনবাড়ীয়া জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষনা করে।  পরে প্রচার করে সালমা নিজে বিষ পান করে আত্মহত্যা করেছে। মেয়ে হত্যার বিচার চেয়ে মাধবপুর থানার লিখিত অভিযোগ করেছেন তিনি। মাধবপুর থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক জানান, নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের শেষে স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এটি হত্যা না আত্মহত্যা এটি মাথায় রেখে পুলিশ তদন্ত করছে। 


 

এ জাতীয় আরো খবর