শনিবার, অক্টোবর ২৩, ২০২১

ফয়সল চৌধুরী এমবিইকে হবিগন্জ সোসাইটি ইউকের সম্বর্ধনা

  • এ রহমান অলি :
image

লন্ডন, ১৫ সেপ্টেম্বর : স্কটল্যান্ড পার্লামেন্টে নির্বাচিত এমপি ফয়সল চৌধুরী এমবিইকে সংবর্ধনা প্রদান করেছে হবিগন্জ সোসাইটি ইউকে। গত ১২ সেপ্টেম্বর রবিবার বার্মিংহাম এমটি ক্যাটারিং হলে সংগঠনের সভাপতি রানা মিয়া চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক এম এ মোন্তাকিম এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, অর্গানাইজেশন ফর দ্য রিকগনিশন অব বাংলা এজ এন অফিসিয়াল ল্যান্গুয়েজ অব দ্য ইউনাইটেড নেশন এর সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী, কাউন্সিলার সাদেক সমসু, কমিউনিটি একটিভিস্ট বশির মিয়া কাদির, সৈয়দ এলাহি হক সেলু, দি প্যালেস পুটিজুরি হবিগন্জ এর ডাইরেক্ট কামাল হোসেন, হবিগন্জ ডিষ্ট্রিক্ট ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন ইউকের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মুকিত চৌধুরী, স্কটল্যান্ডের বিশিষ্ট কমিউনিটি নেতা গোলাম আনিস চৌধুরী, সিভিল সার্ভেন্ট তাহির আলী, প্রভাষক সৈয়দ মোহাম্মদ ইকবাল, মাজেদুল ইসলাম মিন্টু, মহিবুর রহমান, বৃন্দাবন কলেজের সাবেক ভিপি নাজমুল আজিজ জুবায়ের, কমিউনিটি নেতা রহমত আলী, আদাম স্পোর্টস্ এর চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন, ওল্ডহ্যাম কমিউনিটি নেতা জুনেদ হোসেন চৌধুরী, বৃন্দাবন কলেজ এলামনাই এসোসিয়েশন ইউকে এর সভাপতি এ রহমান অলি, কমিউনিটি নেতা আব্দুল বাছেত চৌধুরী অপু প্রমুখ।

উল্লেখ্য, স্কটিশ পার্লামেন্ট নির্বাচনে প্রথমবারের মতো কোনো বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি হলেন হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার বদরদি গ্রামের ফয়সল চৌধুরী। বাবা গোলাম রব্বানী চৌধুরী  ও মা রোকেয়া রব্বানী চৌধুরীর পাঁচ মেয়ে ও এক ছেলের মধ্যে ফয়সল চৌধুরী সবার বড়।। হবিগন্জ শহরের পুরানমুন্সেফী রামচরন সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ও হবিগন্জ সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র ফয়সল চৌধুরী ১৯৮২সালে মা বাবার সাথে ইংল্যান্ড পাড়ি জমান ইংল্যান্ডে। প্রথমে ম্যানচেস্টার এবং পরে এডিনবরায় বসবাস শুরু করেন। বাবা শারীরিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়লে বড় ছেলে হিসেবে সেই তরুণ বয়সেই পরিবারের হাল ধরেন ফয়সল চৌধুরী। তখন থেকেই যুক্ত রয়েছেন পারিবারিক ক্যাটারিং ব্যবসায়।  তিনি কমিউনিটি এক্টিভিষ্ট হিসেবে মহামান্য রানী এলিজাবেথ এর কাছ থেকে মেম্বার অব বৃটিশ এম্পায়ার (এমবিই) খেতবে ভূষিত হন। ফয়সল চৌধুরী তার দায়িত্ব পালনে কমিউনিটির সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন।


এ জাতীয় আরো খবর