শনিবার, অক্টোবর ২৩, ২০২১

মিশিগান শিব মন্দিরে ৭দিন ব্যাপী শারদীয় দুর্গোৎসব শুরু আজ

  • নিজস্ব প্রতিবেদক :
image

ওয়ারেন, ৯ অক্টোবর : মিশিগানে পুজোর ঢাকে কাঠি পড়ে গেল। গত বৃহস্পতিবার (৭ অক্টোবর) শুরু হয়েছে শারদীয়া নবরাত্রি। আজ নবরাত্রির চতুর্থ তিথিতে রাজ্যের ওয়ারেন সিটিতে নব প্রতিষ্ঠিত শিব মন্দির- টেম্পল অব জয়-এ অভিষেক ও বিশেষ পূজার মাধ্যমে সাতদিন ব্যাপী শারদীয় দুর্গোৎসব শুরু হচ্ছে। মহাপঞ্চমীতে রোববারও দেবী দুর্গা পূজিতা হবেন। এছাড়া আজ ও কাল এই দুইদিন অনুষ্ঠিত হবে গ্র্যান্ড সেলিব্রেশন। 
মহালয়ার সাথে সাথে কৃষ্ণপক্ষের অবসান হয়। দেবীপক্ষের সূচনা হয়। পরদিন অর্থাৎ শুক্লপক্ষের প্রতিপদ থেকে নবমী পর্যন্ত ন'টি রাত্রি অবধি মা দুর্গার নয়টি রূপের পুজো চলে। শরৎকালীন এই নবরাত্রি উৎসবকে বলা হয় শারদ নবরাত্রি। মূলত এটি শক্তির আরাধনা। 
১১ অক্টোবর সোমবার ষষ্ঠীতে দশভুজা দেবী দুর্গার বোধন, আমন্ত্রণ ও অধিবাসের মধ্য দিয়ে শুরু হবে মূল পূজা তথা দুর্গাপূজা। প্রতিবছর ষষ্ঠীর আগে পঞ্চমীর দিন সন্ধ্যায় বোধনের মধ্য দিয়ে দেবীর আগমনধ্বনি অনুরণিত হলেও এবার তা হচ্ছে না। পঞ্চমী ও ষষ্ঠী তিথি একই দিনে পড়ায় দুই দিনের ধর্মীয় আচার-অনুষ্ঠান একই সঙ্গে উদযাপিত হবে। ১২ অক্টোবর সকালে নবপত্রিকা প্রবেশ ও স্থাপনের পর শুরু হবে মহাসপ্তমী পূজা। ১৩ অক্টোবর মহাঅষ্টমী পূজা, ১৪ অক্টোবর বিহিত পূজার মাধ্যমে হবে মহানবমী পূজা। নবরাত্রির পরদিন  ১৫ অক্টোবর সকালে বিজয়াদশমীর সাথে সাথে সাঙ্গ হবে দেবীর মহাপূজা।


অতিমারীর জন্যে গত বছর রাজ্যে পুজো খুব সংক্ষেপে হয়েছিল। তবে এই বছর একটু পরিস্থিতি ভালো। তাই অতিমারি কাটিয়ে যে আয়োজন আর প্রস্তুতি চলছে তা কিন্তু যথেষ্ট আশাব্যাঞ্জক। এদিকে পূজাকে ঘিরে  শিব মন্দির- টেম্পল অব জয়-এ ধর্মীয় আনুষ্ঠানিকতা ছাড়াও  নাচ, গান, আরতি, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। সঙ্গীতানুষ্ঠানে জনপ্রিয় লোক সঙ্গীত শিল্পী দুলাল ভৌমিক এবং মৌরাজ অংকন গান পরিবেশন করবেন। নৃত্য পরিবেশন করবেন জনপ্রিয় নৃত্য শিল্পী সঙ্গীতা কর। এছাড়াও রয়েছে স্থানীয় শিল্পীদের পরিবেশনায় নাচ, গান, কবিতা পাঠের আসর, ধুনুচি নৃত্য, ধামাইল প্রভৃতি।
বাহারি সাজে সাজানো হয়েছে মন্দিরটি। বানোনো হয়েছে তোরণ। করা হয়েছে আলোকসজ্জ্বা। গতকাল রাতে মন্দিরে গিয়ে দেখা গেছে, দুর্গা মায়ের পুজোর শেষ মুহূর্তের সাজ গোজ চলছে। মন্দিরের ভেতরে বাইরে মধ্য রাত পর্যন্ত ব্যস্ত সময় অতিবাহিত করেছেন অসংখ্য একনিষ্ট ভক্ত। আর এভাবেই দশভূজার আশীর্বাদ ও শক্তি নিয়ে আস্তে আস্তে 'করোনাসুরের' দাপট মোকাবিলা করে সাধারণ জীবনযাত্রায় ফিরে যাওয়ার তীব্র চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন এখানকার বাসিন্দারা। 


শারদীয় দুর্গাপূজাকে ঘিরে টেম্পলের প্রতিষ্ঠাতা চিনু মৃধার সার্বিক তত্ত্বাবধানে এবং সৌরভ চৌধুরীর সম্পাদনায় প্রকাশিত হয়েছে শারদ সংকলন ‘শারদ উৎসব ১৪২৮’। গ্রাফিক ডিজাইন করেছেন সার্বজনীন শারদীয় দুর্গোৎসব উদযাপন কমিটির সভাপতি রতন হাওলাদার। 
উল্লেখ্য, চলতি বছরের ২৭ সেপ্টেম্বর  রাজ্যের ওয়ারেন সিটিতে প্রতিষ্ঠিত হয় এখানকার সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বহু কাঙ্খিত একটি মন্দির।  আর এই মন্দিরটির অর্থায়ন করছেন কিংবদন্তীতুল্য দানবীর, মিষ্টভাষী, ধর্মপরায়ন ব্যক্তি, বিশিষ্ট চিকিৎসক এবং স্বনামধন্য দার্শনিক ডা: দেবাশীষ মৃধা, তার সহধর্মিনী চিনু মৃধা এবং কন্যা অমিতা মৃধা। মন্দিরটির নামকরণ করা হয়েছে শিব মন্দির-টেম্পল অব জয়। নতুন এই মন্দিরটি দেখার জন্য প্রতিনিয়ত আসছেন বহু মানুষ।


এ জাতীয় আরো খবর