মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ৭, ২০২১

যুগান্তকারী উদ্যোগ : মিশিগানে দুটি খেলার মাঠ পেল ক্রিকেট প্রেমীরা

  • নিজস্ব প্রতিবেদক :
image

ছবি  বাম থেকে জোনাথন লাফার্টি,  রন পাপান্ড্রিয়া এবং দেলোয়ার আনসার।

ওয়ারেন, ১১ নভেম্বর : প্রথমবারের মতো ওয়ারেন সিটি একটি প্রস্তাব পাস করেছে যা বাংলাদেশী সম্প্রদায়ের ক্রিকেট প্রেমীদের জন্য একটি প্রধান সমস্যার সমাধান হয়েছে। গত ৯ নভেম্বর (মঙ্গলবার) ওয়ারেন সিটি কাউন্সিল সভায় মিশিগান টাইগার ইয়ুথ স্পোর্টস ক্লাবের উদ্যোক্তা দেলোয়ার আনসারের পক্ষ থেকে ওয়ারেন সিটিতে ক্রিকেট খেলার জন্য দুটি মাঠের প্রস্তাব পেশ করা হয় ৷ কাউন্সিলম্যান জোনাথন লাফার্টি এবং রন পাপান্ড্রিয়ার মাধ্যমে প্রস্তাবটি রেজুলেশন আকারে কাউন্সিলর সভায় উপস্থাপন করা হয়। পরে সরাসরি ও প্রত‍্যক্ষ ভোটে অর্থাৎ ৭-০ ভোটে প্রস্তাবটি গ্রহণ করা হয়।
প্রস্তাবটি পাস হবার পর  টাইগার ইয়ুথ স্পোর্টস ক্লাবের উদ্যোক্তা দেলোয়ার আনসার বলেন, আমি গর্বিত বোধ করছি যে আমার প্রস্তাবটি কোনো বিরোধিতা ছাড়াই পাস হয়েছে। আজ ছিল ওয়ারেন কিংবা অন্য যে কোনো সিটির বাংলাদেশী ক্রিকেট প্রেমীদের জন্য একটি ঐতিহাসিক দিন।  আগামী বছরের মধ্যে ওয়ারেন সিটিতে  আমাদের আরও দুটি ক্রিকেট মাঠ থাকবে, ইনশাআল্লাহ। ভোট দেয়ার জন্য সিটি কাউন্সিলের সকল সদস্যদের ধন্যবাদ এবং বরাবরের মতো আমাদের সম্প্রদায়কে সমর্থন করার জন্য মেয়রকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি । সেই সাথে সমস্ত ক্রিকেট খেলোয়াড়দের ধন্যবাদ জানাচ্ছি, যারা ভোট প্রত্যক্ষ করার জন্য কাউন্সিলের সভায় তিন ঘন্টা ছিলেন।  

ওয়ারেন কাউন্সিলম্যান জোনাথন লাফার্টি  তাঁর ফেসবুক পেইজে দেলোয়ারকে ধন্যবাদ দিয়ে ষ্টেটাস দেন। তিনি লিখেছেন, “গত সন্ধ্যায় সিটি কাউন্সিলের সভা চলাকালীন সময়ে কাউন্সিলম্যান রন পাপান্ড্রিয়ার সাথে ওয়ারেন সিটিতে ক্রমবর্ধমান বাংলাদেশী সম্প্রদায়ের পক্ষে দুটি নতুন ক্রিকেট মাঠ নির্মাণের আহ্বান জানিয়ে একটি প্রস্তাব সহ-স্পন্সর করতে পেরে গর্বিত।" তিনি লিখেন,  “এই রেজোলিউশনের চ্যাম্পিয়ন হলেন দেলোয়ার আনসার, যিনি একজন উদ্যমী তরুণ বাসিন্দা এবং মিশিগান টাইগার ইয়ুথ স্পোর্টস ক্লাবের উদ্যোক্তা। তার প্রস্তাবটি সর্বসম্মতিক্রমে গৃহীত হয়েছে।” জোনাথন লাফারটি আরো লিখেন, “ক্রিকেটের লজিস্টিক প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে বিস্তারিত বোঝার জন্য দেলোয়ারের সাথে বৈঠক করি। এই  সময় আমরা আমাদের পার্ক এবং বিনোদনমূলক পরিষেবাগুলিকে উন্নত করার পরিকল্পনা করি এবং ওয়ারেন সিটিতে  আরও বেশি জায়গায় বিনিয়োগ করার প্রয়োজনীয়তার উপর জোর দেয়া হয়।  ট্রম্বলি পার্কে শুধুমাত্র একটি ক্রিকেট মাঠ থাকায়, মাঠের সময়ের চাহিদা ওয়ারেনের খেলার জন্য বর্তমান উপলব্ধ স্থানকে ছাড়িয়ে গেছে। এই রেজোলিউশনে দুটি ক্ষেত্র নির্মাণ এবং একটি স্থায়ী ক্রিকেট সুবিধা নির্মাণের চূড়ান্ত বিবেচনার জন্য বলা হয়েছে যা ওয়ারেন শুধু রাজ্য নয়, সারা বিশ্বের দলগুলির জন্য আন্তর্জাতিক ক্রিকেট টুর্নামেন্ট আয়োজনের জন্য মানচিত্রে স্থান দেবে।” অবশেষে দেলোয়ারকে ধন্যবাদ দিয়ে লিখেন, “আমি অবশ্যই দেলোয়ারকে বাংলাদেশী সম্প্রদায়ের প্রতিনিধিত্ব করার জন্য, এবং তার ক্রীড়াবিদদের তাদের চাহিদা এবং আকাঙ্ক্ষার সমর্থনে সরকারের সক্রিয় ভূমিকা নিতে উৎসাহিত করার জন্য তার প্রশংসা করছি।  অভিনন্দন, দেলোয়ার!”
জোনাথন লাফার্টির ষ্টেটাসের দুই ঘন্টা পর খুশি হয়ে রন পাপান্ড্রিয়া লিখেন, “আমরা বাংলাদেশী সম্প্রদায়ের জন্য একসাথে কাজ করে একটি দুর্দান্ত দল তৈরি করেছি। আমি আরও উল্লেখ করতে চাই যে এর পিছনে চালিকা শক্তি ছিল আমাদের পারস্পরিক বন্ধু দেলোয়ার আনসার। এটি বাস্তবায়ন করার জন্য তিনি বছরের পর বছর ধরে কঠোর পরিশ্রম করেছেন।”


এ জাতীয় আরো খবর