সোমবার, জুন ২৭, ২০২২

মৃধা বেঙ্গলী কালচারাল সেন্টারের বর্ণাঢ্য উদ্বোধন কাল

  • নিজস্ব প্রতিবেদক :
image

ওয়ারেন, ১০ জুন : মৃধা বেঙ্গলী কালচারাল সেন্টারের বর্ণাঢ্য উদ্বোধন কাল শনিবার (১১ জুন)। উদ্বোধনকে ঘিরে বসবে বাঙালি মেলা। এজন্য কমিউনিটির মধ্যে বিশেষ উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। মেলায় প্রবাসী বাঙালিদের ব্যাপক অংশগ্রহণ আশা করছেন আয়োজকরা । বেলা ১২টায় শুরু হয়ে রাত ৮টা পর্যন্ত চলবে এই মেলা।  
শারমিন তানিম-র সার্বিক তত্বাবধান মেলায়  সিলেটের ঐতিহ্যবাহী মনিপুরী শাড়ি, অন্যান্য পোশাক, জুয়েলারিসহ দেশজ শিল্পের নানা পসরা নিয়ে বসবে ২০ টি স্টল। এছাড়াও মিলবে হাতপাখা ও কুলাসহ নানান সামগ্রী। থাকবে খাবারের দোকানও। এছাড়াও ঘুড়ি উৎসবসহ বিভিন্ন প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে। রয়েছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। 
ওইদিন দুপুর ১২টায় নগরীর ২২০২১,  মেমফিস এভিনিউস্থ কালচারাল সেন্টার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, ম্যাথ অলিম্পিয়াড এবং ঘুড়ি উৎসব অনুষ্ঠিত হবে। চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন অমিতা মৃধা, অঙ্কিতা হাওলাদার ও সামন্ত চৌধুরী।
ঘুড়ি উৎসব প্রতিযোগিতা শুরু হবে দুপুর ১টা ৩০ মিনিটে। প্রতিযোগিতাটি পরিচালনা করবেন রাজর্ষি চৌধুরী গৌরব। ম্যাথ অলিম্পিয়াড দুপুর ২টা থেকে ৩টা। এই প্রতিযোগিতায় গ্রেড-১ : ৩ থেকে ৪ বছর, গ্রেড-২ : ৫ থেকে ৬ এবং গ্রেড-৩ : ৭ থেকে ৮ বছর বয়সীরা অংশ নিতে পারবে। সময় ১ ঘন্টা। সকল পারফর্মাররা সার্টিফিকেট এবং বিজয়ীরা ট্রফি পাবে। এ পর্ব পরিচালনা করবেন জাহিদ জিয়া।
বিকাল সাড়ে ৩টায় প্রদীপ প্রজ্জলন করে আনুষ্ঠানিকভাবে মৃধা বেঙ্গলী কালচারাল সেন্টারের উদ্বোধন। উদ্বোধন করবেন প্রতিষ্ঠাতা দেবাশীষ মৃধা এবং তার সহধর্মিনী সুপ্রভাত মিশিগানের সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি  চিনু মৃধা। আলোচনা সভায় অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন  ওয়ারেন সিটি  মেয়র জেমস আর ফাউটস এবং হ্যামট্রাম্যক সিটি মেয়র আমের গালিব। জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠান পরিচালনা করবেন  মৃদুল কান্তি সরকার।


ছবি : দার্শনিক ড. দেবাশীষ মৃধা ও তার সহধর্মিনী চিনু মৃধা।

বিকাল সাড়ে ৪টায় পুরষ্কার ও সার্টিফিকেট বিতরণ। এতে হোস্ট  হিসেবে থাকবেন সৌরভ চৌধুরী। বিকাল সাড়ে ৫টায় এমবিসিসি কালচারাল শো টপিক : বাংলাদেশী প্রকৃতি। যারা অংশ নিতে পারবে : গ্রুপ এ :  ৫ থেকে ৮ বছর, গ্রুপ বি : ৯ থেকে ১২ বছর এবং  গ্রুপ সি ১৩ থেকে ১৫ বছর । সময় ৩০ মিনিট। সকল পারফর্মাররা সার্টিফিকেট এবং বিজয়ীরা ট্রফি পাবে। এতে হোস্ট হিসেবে থাকবেন সুপ্রভাত মিশিগানের সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি চিনু মৃধা।  পরে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এ পর্বটি চিনু মৃধা, আকরাম হোসেন, আয়েশা চৌধুরী, মৌসুমী দত্ত ও  সুপর্ণা চৌধুরী পরিচালনা করবেন। পুরো অনুষ্ঠানটির সার্বিক তত্বাবধান থাকছেন চিনু মৃধা, মৃদুল সরকার ও রসি মীর। অনুষ্ঠানে সাউন্ড সিস্টেমের দায়িত্বে  রয়েছেন রাজর্ষি চৌধুরী গৌরব।
উল্লেখ্য, বাংলা সংস্কৃতি বিকাশে রাজ্যর প্রবাসী বাঙ্গালিদের জন্য এই  কালচারাল সেন্টারটি গড়ে তুলেছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত মার্কিন চিকিৎসক এবং দার্শনিক ড. দেবাশীষ মৃধা ও তার সহধর্মিনী চিনু মৃধা ।  
এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে ড.দেবাশীষ মৃধা বলেন,  বিদেশের মাটিতে বাংলা ভাষা, সংস্কৃতি ও দেশের ইতিহাসকে তুলে ধরার জন্যই এই প্রয়াস। এছাড়া এখানে আমাদের প্রজন্ম বেড়ে উঠছে। তারা বাংলা সংস্কৃতি সম্পর্কে শেখার কোনো মাধ্যম পাচ্ছে না। তাদেরকে নিজ জাতির সংস্কৃতি চর্চায় মনোনীবেশ করার জন্য এই কালচারাল সেন্টারটি গড়ে তোলা হয়েছে।
তিনি আরও জানান, মৃধা বেঙ্গলি কালচারাল সেন্টারে থাকছে, বাংলা শিক্ষার স্কুল, বাংলা গানের স্কুল, নাচের স্কুল। শেখানো হবে গিটার বাজানো । এই সেন্টারে থাকছে বাংলা সাহিত্য সংসদ, বসবে কবিতা পাঠের আসর। উদযাপন করা হবে জাতীয় দিবসগুলো। আয়োজন করা হবে বাংলা মেলার। 
ড. দেবাশীষ মৃধা এই সেন্টারটি গড়তে প্রায় তিন লাখ ডলার খরচ করেছেন। পুনর্গঠনের কাজ অব্যাহত রয়েছে। আরও দুই লাখ ডলারের বাজেট রয়েছে বলে মৃধা পরিবার জানান। ড.দেবাশীষ মৃধার বাড়ি বাংলাদেশের পিরোজপুর জেলায়। তিনি ইউক্রেনের একটি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডাক্তারি পাশ করে ১৯৯১ সালে  আমেরিকায় আসেন এবং বর্তমানে স্নায়ুতন্ত্র বিশেষজ্ঞ হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। সাগিনা সিটিতে তার নিজস্ব ক্লিনিক রয়েছে। তিনি সেন্ট্রাল মিশিগান ইউনির্ভাসিটির এসোসিয়েট প্রফেসর। আর তাঁর সহধর্মিনী চিনু মৃধা, তাদের রিয়াল এস্টেট ইনভেস্টমেন্ট বিজনেসসহ অন্যান্য বিজনেস এবং মৃধা ফাউন্ডেশনের প্রধান পরিচালকের দায়িত্ব পালন করছেন। 

 


এ জাতীয় আরো খবর