আমেরিকা , বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪ , ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
ডেট্রয়েট মেট্রোপলিটন বিমানবন্দরে আক্রমণাত্মক জীবন্ত শামুক জব্দ মিশিগান রিপাবলিকানরা গভর্নর হুইটমারের সমালোচনা করতে কনভেনশন ভোট ব্যবহার করেছে হ্যামট্রাম্যাকে গাড়ির ধাক্কায় ৩ বছরের শিশু নিহত রোলওভার দুর্ঘটনায় মা ও দুই ছেলে নিহত কোপা জয় আর্জেন্টিনার আনন্দ আয়োজনে শিব মন্দিরের বনভোজন মিশিগানে আজ তীব্র বজ্রপাত, ঝড় ও শিলাবৃষ্টির আশঙ্কা ওয়ারেনে স্ত্রীকে খুন করে পুলিশকে স্বামীর ফোন নির্বাচনী জনসভায় ট্রাম্পকে লক্ষ্য করে গুলি, অল্পের জন্য রক্ষা মিশিগানে একে একে বাড়ছে হাম : টিকা নেয়ার তাগিদ কারাগারে মাদক পাচারের অভিযোগে কারাকর্মী গ্রেপ্তার হ্যাজেল পার্কে বাড়িতে আগুন লেগে মা-মেয়ের মৃত্যু মিশিগান জুড়ে ফার্মেসি বন্ধের ঢেউ প্ল্যান্ট বন্ধ করতে ও ইভি তৈরি করতে এক বিলিয়ন ডলার পাচ্ছে জিএম ও স্টেলান্টিস ২৫টি ক্লিন এনার্জি বাস কিনতে ৩০.৮ মিলিয়ন ডলার অনুদান পেয়েছে ডেট্রয়েট ডেট্রয়েট স্কুল বোর্ড শিক্ষকদের সাথে দুই বছরের চুক্তি অনুমোদন করেছে ৪ ঘণ্টা পর শাহবাগ ছাড়লেন শিক্ষার্থীরা, যান চলাচল শুরু মাকে হত্যার পর সন্দেহভাজনের আত্মসমর্পণ বেরিলের প্রভাবে মেট্রো ডেট্রয়েট বৃষ্টিপাত অব্যাহত ওয়াশটেনাও কাউন্টি ওয়াটার প্ল্যান্টে অবৈধ প্রবেশের দায়ে এক ব্যক্তি গ্রেপ্তার

বিপ্লবী ডা. পবন চন্দ্র দেবনাথের ৩৩তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

  • আপলোড সময় : ০৫-০৭-২০২৪ ০২:৪৬:৩০ পূর্বাহ্ন
  • আপডেট সময় : ০৫-০৭-২০২৪ ১১:১৪:০৬ পূর্বাহ্ন
বিপ্লবী ডা. পবন চন্দ্র দেবনাথের ৩৩তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ
কুলাউড়া, ৫ জুলাই : আজ ৫ জুলাই  ডা.পবন চন্দ্র দেবনাথের ৩৩তম মৃত্যুবার্ষিকী। নিজ গ্রাম আর মফস্বল শহরের গণ্ডি পেরিয়ে যিনি বড় পরিসরে সামাজিক-সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বে পরিণত হয়েছিলেন। ছিলেন সাম্যবাদী দলের কেন্দ্রীয় নেতাও। যিনি চেতনায় ছিলেন একজন আপাদমস্তক শ্রেণিসংগ্রামের মানুষ। শ্রমিক-কৃষক খেটে খাওয়া জনপদে বিপ্লবী স্পৃহা-চেতনা তৈরিতে তাঁর ছিলো অবাধ বিচরণ। মেধা-মননে আজীবন তাই লালন করেছেন প্রলেতারীয় (সর্বহারা) সংস্কৃতি। বহুমাত্রিক চিন্তা-চেতনার পুরোধা এই পুরুষ কুলাউড়ার প্রত্যন্ত অঞ্চলে বেড়ে উঠেও নিজের বিপ্লবী চিন্তা, আপোসহীন মনোভাব ও সাংগঠনিক দক্ষতা দিয়ে খ্যাতি অর্জন করেছিলেন সর্বত্র। হৃদয়ে আজন্ম ধারণ করেছিলেন চীনের কৃষি ও সাংস্কৃতিক বিপ্লবের তাৎপর্য। মানুষের জন্য পরিবর্তন নয়, রূপান্তরের মধ্য দিয়েই সমাজ পাল্টানোর ভাব-মানসের পরিচয় পাওয়া যায় তাঁর সৃজনশীল কর্মে। মেজর (অব.) এম এ মোত্তালিব রচিত 'মুক্তিযুদ্ধের উত্তর-পূর্ব রণাঙ্গন' বইয়ের একটি জায়গায় ডা. পবন চন্দ্র দেবনাথের নাম স্বীকৃতিস্বরূপ উল্লেখ আছে। 
ডা. পবন চন্দ্র দেবনাথের জ্যেষ্ঠ পুত্র ডা. বিজয় কৃষ্ণ দেবনাথ বাবুল বাবাকে নিয়ে এই স্মৃতিচারণমূলক লেখাটি লিখেছেন-
১৯৩৬ এ জন্ম নেওয়া ডা. পবন চন্দ্র দেবনাথের রাজনৈতিক হাতে কড়ি ৫০ এর দশক এর গোড়ার দিক থেকে রাউৎগাঁও স্কুলে এন্ট্রাস পড়া অবস্থায়। হিঙ্গাজিয়া গ্রাম নিবাসী ড. বিজন বিহারী পুরকায়স্থের হাত ধরে। ড. বিজন বিহারী পুরকায়স্থ ভারতে চলে যান। কমিউনিস্ট রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বের পাশাপাশি উনি ছিলেন রবীন্দ্র ভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষাবিদ অধ্যাপক ও ডিন। অবসরের পর তিনি তিনবার বাংলাদেশ সফর করেন। উঠেছিলেন আমাদের বাসায় উত্তর বাজার কুলাউড়ায়। মূলত ডা. পবন চন্দ্র দেবনাথ ১৯৬২ সালে কমিউনিস্ট পার্টির সদস্যপদ লাভ করেন। রাজনৈতিক কারণে পরিবার থেকে সরে থাকতেন বেশিরভাগ সময়। উনার জীবন মূলত তিনটি ভাগে বিভক্ত ছিলো। যা পরবর্তীতে আমি বিস্তারিত লেখার চেষ্টা করবো। 
১) রাজনৈতিক, ২) সাংস্কৃতিক ও নাট্য, ৩) হোমিও গবেষণা পঞ্চাশ সহস্রতমিক পদ্ধতি প্রতিষ্ঠাসমূহ। 
উনার কর্মময় জীবনের রাজনীতির পাশাপাশি দলিল লেখক, সহকারী সরপঞ্চ, ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যসহ সামাজিক কর্মকাণ্ডে জড়িত ছিলেন। উনার কর্মক্ষেত্র এত ব্যাপক ছিলো যে স্বল্প পরিসরে বলা মুশকিল। ১৯৮৪ সালে এরশাদ সরকারের সামরিক শাসন চলছে ডা. পবন চন্দ্র তখন ধানমন্ডী, ঢাকা-১৯৭, গ্রীণ রোড (বর্তমান কলাবাগান থানা) হোমিও প্র্যাকটিস এর পাশাপাশি সাম্যবাদী দলের সক্রিয় রাজনৈতিক ভূমিকায় অবতীর্ণ। চাপ আসে সরকার থেকে, আসে গোয়েন্দা নরজদারি চেম্বারের উপর। রোগী সেজে আসতেন সামরিক কর্মকর্তারাও। আসতেন বুদ্ধিজীবী সমাজ, উল্লেখ না করলে নয় চেম্বারে আসতেন সাবেক মন্ত্রী বি.এম আব্বাস, জাতীয় অধ্যাপক কবির চৌধুরী, ড. হামিদউল্লা খান, ড. এস এম লুৎফুর রহমান। পরিশেষে আসে সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মেজর জেনারেল মান্নান সিদ্দিকীর পক্ষ থেকে প্রস্তাব। এরশাদ সাহেব পাঠিয়েছেন স্বাস্থ্য মন্ত্রীর পদ গ্রহণ করার জন্য। ডা. পবন চন্দ্র দেবনাথ প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করার পর গোয়েন্দাদের অতিরিক্ত চাপের কারণে স্ট্রোক করে দেড় মাস পিজি হাসপাতাল বর্তমান বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি ছিলেন। অধ্যাপক কবীর চৌধুরী, সাবেক মন্ত্রী বি. এম আব্বাস দেখা করতে যান। উনারা পবন বাবুর চিকিৎসার ত্রুটি দেখে দেখা করলেন তৎকালীন পিজি হাসপাতালের মহাপরিচালক ডা. নুরুল ইসলাম এর সাথে। সরকারি খরচে তাঁর চিকিৎসার দাবি জানানো হয়, এগিয়ে আসলেন কমরেড দিলীপ বড়ুয়া। গঠিত হয় মেডিকেল টিম। সরকারি খরচায় এ যাত্রায় বেঁচে গেলেন। ৫ জুলাই, ১৯৯১ সকল কর্মের অবসান ঘটিয়ে অকালে চলে গেলেন ডা. পবন চন্দ্র দেবনাথ। বিপ্লবী ডা. পবন চন্দ্র দেবনাথ মিশিগানের ওয়ারেন সিটির বাসিন্দা অনুকুল দেবনাথের জেঠু। 

নিউজটি আপডেট করেছেন : Suprobhat Michigan

কমেন্ট বক্স
সর্বশেষ সংবাদ
আটলান্টিক সিটির বোর্ড অব এডুকেশনের পর্ষদ সভা অনুষ্ঠিত

আটলান্টিক সিটির বোর্ড অব এডুকেশনের পর্ষদ সভা অনুষ্ঠিত